কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজ; ভক্তরা ভাসছে অবাক ভালোবাসায়!

কোক স্টুডিও বাংলায় ওয়ারফেজ; ভক্তরা ভাসছে অবাক ভালোবাসায়!
আশিক মাহমুদ রিয়াদ
৪০ বছরে পা রাখলো আমাদের অসম্ভব ভালোবাসার ব্যান্ড Warfaze। ওয়ারফেইজকে যখন থেকে শুনি, তখন থেকেই বোধয় আমাদের “পূর্ণতা” শুরু। ওয়ারফেজ যেন গোটা একটা “রূপকথা”র ডায়েরি, সেই ডায়েরিতে লেখা হয়েছে পাতার পর পাতা। দিন কেটে গেছে, কত বিকেলে হিমেল হাওয়ায় বসেছি একা। কল্পনার এ দুয়ারে সে দুয়ারে কত উকিবুকি হয়েছে, জীবনে প্রেম এসেছে; “অবাক ভালোবাসা”য়।
May be an image of 1 person and text that says 'CARVIN cKa ca-Col Och Real Real.Magic Magic™'
“আশা”র “স্মৃতিগুলো” ছড়িয়ে কোক স্টুডিও বাংলার আয়োজনে এবার আরও একবার “আলো” ছড়ালো ওয়ারফেজ। ঠিক যখনই এই ঘোষণা বাতাসে ভেসে এলো, তখনই যেনো থমকে দাঁড়িয়েছে মহাকাল। “সব আলো নিভে যাঁক আঁধারে”। “কারণ আজ বাতাসে স্লোগানে মিলেমিশে অদ্ভুত এক সুর দানা বেঁধেছে উন্মাদ ঝংকারে!
অস্তিত্বের আনন্দে হৃদয় ভরে গিয়েছে। বাবনা করিম যখন সেই চিরচেনা অবাক ভালোবাসার সুর গাওয়া শুরু করলেন, আর যখন গাইলেন শুভ্র বালির সৈকতে, এলোমেলো বাতাসে গিটার হাতে। আমার তখন গুজবাম্প হচ্ছিলো। শুধু তাই নয়, নার্ভ ব্লিংকিং সব মিলে মিশে যেনো ভেতরে ভেতরে এক সুখের কান্না বয়ে যাচ্ছিলো। চিরচেনা সেই বাঁশির সুরও আছে, ওয়ারফেইজ লাভাররা আরও একবার ভাসলেন আনন্দের উৎসবে। অবাক ভালোবাসার মোহময় শুভ্র সুরে।
বেইজকে ঘিরে যেন এক মোহমায়ায় আচ্ছ্বন্ন করে রেখেছেন রজার। এরপর কিছুদূর গড়াতেই বর্তমান ভোকালিস্ট পলাশ যখন গাইতে শুরু করলেন। তখন আরও একবার ভেতরে ক্ষুধা বাড়লো। “পলাশ” এই লোকটা জাস্ট ইনক্রিডিয়েবল। ২০২১ সালে একেবারে স্টেইজের কাছ থেকে তার গলা উপভোগ করেছি। এ আমার ভাগ্য বটে। পলাশ ভাই গুণ সম্পন্ন মানুষ, তার ধারাবজায় রেখেছেন লাইভ পারফর্মেন্সে। কোক স্টুডিও বাংলায়ও তার ব্যতিক্রম নয়, যেন তৃষ্ণার্ত মরুর বুকে একপশলা ক্লান্ত বিকেলে তিনি বৃষ্টি ছড়িয়েছেন, ভক্তরা ভিজেছে তার কণ্ঠের জাদুতে; কল্পনার আলপনা এঁকে দিয়ে যায় অবাক ভালোবাসায়!
May be an image of 1 person and text that says 'beaCoi Dol Bea Real RealMagic Magic MA'
কোক স্টুডিও বাংলার এবারের সবচেয়ে ভালোলাগার বিষয়টি হচ্ছে, সিনেমাটোগ্রাফি, সেট ডিজাইন আর কস্টিউম ম্যানেজমেন্ট। জাস্ট মাইন্ড ব্লোয়িং, মাইন্ড ব্লোয়িং বললে ভুল হবে “আই ব্লোয়িং” এতটা সুন্দর করে ভিডিওর আয়োজন করা যে চোখে অদ্ভুত প্রশান্তি পাওয়া যায়। সাদা কস্টিউমের সাথে আলতো শুভ্র লাইটিং প্রত্যেকটা ফ্রেমে অদ্ভুত এক মায়া জাগিয়েছে। মনে হয়েছে যেনো শুভ্র বালির সৈকতে এক অদ্ভুত গানের আসর বসেছে। কোক স্টুডিও বাংলার এই এপিসোডটির চিত্রায়ন করা হয়েছে বিএফডিসিতে। ফ্রেম জুড়ে ফুঁটে উঠেছে চাঁদনি রাতে সমুদ্র সফেন এক অদ্ভুত জড়তা। যে জড়তায় শুধু মোহ আছে, আছে অদ্ভুত প্রেমের দ্বগ্ধতা। ভিডিও পরিচালনা করেছেন কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়।
ইন্সট্রুমেন্টাল অ্যারেজমেন্টে ব্যাতিক্রম কোক স্টুডিও বাংলা। দিজ ইজ দ্যা রিয়েল ফিউশান। ভিডিওর শুরুতে সান্তুর, তানপুরার সুরের অদ্ভুত কম্বিনেশন, সাথে ভায়োলিনের সিম্ফোনি মিলেমিশে প্রত্যেকটা সুরের সাথে অদ্ভুত এক সুঁতো গেঁথেছে। ব্যাকগ্রাউন্ড ভোকাল আর্টিস্টদের প্রতি কুর্ণিশ রইলো। তারা প্রত্যেকেই দুর্দান্ত করেছেন। অবাক ভালোবাসার অন্যতম একটা বিশেষ অংশ হচ্ছে বাঁশির মন কাড়া সুর। মোহাম্মদ জালাল (ব্যান্ডের বাইরে) সেই সুর তুলেছেন, সমুদ্র তীরে যেন এক হ্যামিলিয়ন সুর তুলেছেন। টানছেন অবাক ভালোবাসায়। গিটারে চিরচেনা স্রোতে সুর তুলেছেন সামির এবং কমল। কিবোর্ডে ভালোবাসার মেলোডি গেঁথেছেন শামস।
May be an image of 1 person, musical instrument and text that says 'bca αζο ol Real RealMagic- Magic™ 金'
তবে সব মিলে মিশে সমুদ্রতটে অসাধারণ এক কাব্য সৃষ্টি হয়েছে আরও একবার। কোক স্টুডিও বাংলার মঞ্চে। বিশ্বাস করুন! যখন থেকে শুরু হয়েছে কোক স্টুডিও বাংলার যাত্রা। আমার পরিচিত অনেকেই এই ক্ষুধার কথা আমাকে জানিয়েছেন, কোক স্টুডিও কি ব্যান্ডদের নিয়ে কাজ করবে না? কোক স্টুডিও বাংলা সেই কথা রেখেছেন। ভক্তদের আরও একবার ভিজিয়েছেন অদ্ভুত ভালোবাসায়। আর এবার ওয়ারফেইজের মধ্য দিয়ে সঙ্গীত প্রেমীরা মোহচ্ছন্ন হলো অবাক ভালোবাসায়। তবে অবাক ভালোবাসায় অবাক করা বিষয় হচ্ছে, এখানে লিরিক্সের ব্যাত্তয় ঘটেনি শুধু ব্যাকগ্রাউন্ড ভোকালে, আর ইন্সট্রুমেন্টে কিছু অ্যাডিশন এসেছে। বাবনা করিম ও পলাশ দুই পার্টে গেয়েছেন। সব মিলিয়ে অদ্ভুত ভালোবাসায় আচ্ছ্বন্ন করেছে এই “অবাক ভালোবাসা”
উল্লেখ্যঃ দেশের ব্যান্ড মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে ওয়ারফেইজ যাত্রা শুরু করে ১৯৮৪ সালে। এরপর ১৯৯১ সালে তাদের প্রথম অ্যালবাম ওয়ারফেইজ মুক্তি পায়। সে সময় ব্যান্ডের সদস্য ছিল পাঁচজন। তাদের মধ্যে এখন শুধু টিপু ও কমল ব্যান্ডের সঙ্গে আছেন। বাকি তিনজন সঞ্জয়, বাবনা ও রাসেল এখন আর ব্যান্ডের সঙ্গে নেই। বর্তমানে ওয়ারফেজের সদস্য সংখ্যা সাত। তারা হলেন—পলাশ (ভোকাল), কমল (লিড গিটার), টিপু (ড্রামস), রজার (বেইজ), শামস (কিবোর্ড), সামির (লিড গিটার), সৌমেন (রিফ গিটার)।

“বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। কেউ যদি অনুমতি ছাড়া লেখা কপি করে ফেসবুক কিংবা অন্য কোন প্লাটফর্মে প্রকাশ করেন, এবং সেই লেখা নিজের বলে চালিয়ে দেন তাহলে সেই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য থাকবে
ছাইলিপি ম্যাগাজিন।”

সম্পর্কিত বিভাগ

পোস্টটি শেয়ার করুন

Facebook
WhatsApp
Telegram
অহংকার   

অহংকার   

গোবিন্দ মোদক    ‘রেইনি ডে’ ঘোষণা করেছেন হেডমাস্টার। গুটিকয় যে ক’জন ছাত্র-ছাত্রী এসেছিল তারা সব চলে গেছে। এতো বৃষ্টিতে বের হবার উপায় নেই — তাই ...
ছেলেবেলার ঈদের খুশি

ছেলেবেলার ঈদের খুশি

ইমতিয়াজ সুলতান ইমরান কিছু স্মৃতি, কিছু প্রীতি, যায় না ভোলা কভু স্মৃতির মায়া, প্রীতির মায়া, হয় না জবু-থবু। কিছু স্মৃতি বিশেষ ক্ষণে মনটা নাড়ে ঠিকই ...
চিরন্তন বাংলাদেশের গল্প

চিরন্তন বাংলাদেশের গল্প

আশিক মাহমুদ রিয়াদ একটি নিকশ কালো রাত, বাতাসে ভেসে বেড়ায় ষড়যন্ত্রের ফিসফিস- কুমন্ত্রণার তোড়জোড় নির্লিপ্ত স্বরযন্ত্রের কড়াল গর্জন, রাস্তায় বের হয় শ’খানেক জলপাই রঙা ট্যাংক। ...
জীবনের আয়োজন (রোমান্টিক গল্প)

জীবনের আয়োজন (রোমান্টিক গল্প)

আশিক মাহমুদ রিয়াদ সেবার রুপাকে কাঁদতে দেখে আমি হেসেছিলাম। বার্ষিক পরিক্ষার ফলাফল প্রকাশ হলো। আমি ফার্স্ট হলাম আর রুপা সেকেন্ড।সারাপথ ওকে ব্যঙ্গ করতে করতে বাড়িতে ...
ছোটগল্প- চশমা

ছোটগল্প- চশমা

শুভাঞ্জন  চট্টোপাধ্যায় লেন্স খুলে পড়া চশমার ফ্রেমটা নিয়ে কিছুক্ষণ নিবিষ্ট মনে খুটুরখাটুর করার পর শেষমেশ মুখটা ব্যাজার করে ভদ্রলোক বললেন, ‘ না দাদা, এ জিনিস মিউজিয়ামে ...
ঈদ এলো: ঈদ মোবারক

ঈদ এলো: ঈদ মোবারক

লুনা রাহনুমা মস্ত বড় আকাশটাতে চাঁদ উঠেছে কাস্তে সরু সোনার মতো ঝলমলে নয়, রুপার মতো মিহি পুরু। ছেলে বুড়ো বেজায় খুশি, দেখা গেছে চাঁদের হাসি ...