বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে যা যা করবেন

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে যা যা করবেন

ভালোবাসা দিবস প্রেমিক-প্রেমিকা কিংবা ভালোবাসার মানুষদের একটি অত্যন্ত বিশেষ একটি দিন, ভালোবাসা দিবস, প্রতি বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি সারা বিশ্বে পালিত হয়। এটি এমন একটি দিন যা প্রেম, রোম্যান্স এবং আবেগের প্রকাশের জন্য উত্সর্গীকৃত যা কখনও কখনও আমাদের কথায় বলা কঠিন। এটি এমন একটি দিন যখন দম্পতিরা একে অপরের প্রতি তাদের ভালবাসা প্রকাশ করে, বন্ধুরা উপহার বিনিময় করে এবং শিশুরা তাদের পিতামাতার কাছে কার্ড পাঠায়। ভ্যালেন্টাইনস ডে একটি বিশেষ উপায়ে ভালবাসা এবং স্নেহ প্রকাশের দিন হয়ে উঠেছে।




ভালোবাসা দিবসের ইতিহাস:

ভালোবাসা দিবসের ইতিহাস একটু রহস্যময়। ছুটির উত্স সম্পর্কে লোকেরা বলেছে এমন বেশ কয়েকটি গল্প রয়েছে। সবচেয়ে জনপ্রিয় সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের গল্প, একজন খ্রিস্টান শহীদ যিনি 270 খ্রিস্টাব্দের 14 ফেব্রুয়ারিতে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত হন। সেন্ট ভ্যালেন্টাইন ছিলেন একজন যাজক যিনি গোপনে দম্পতিদের জন্য বিবাহ সম্পাদন করতেন যাদেরকে রোমান সম্রাট বিয়ে করতে নিষেধ করেছিলেন। তিনি রোমান সাম্রাজ্যের দ্বারা নির্যাতিত খ্রিস্টানদেরও সাহায্য করেছিলেন। যখন তাকে ধরা পড়ে জেলে ঢোকানো হয়, তখন সে জেলারের মেয়ের প্রেমে পড়ে যায়। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আগে তিনি তাকে একটি প্রেমের চিঠি লিখেছিলেন এবং তিনি তাতে স্বাক্ষর করেছিলেন “আপনার ভ্যালেন্টাইন থেকে।” এখান থেকেই ভ্যালেন্টাইনস ডে কার্ড পাঠানোর ঐতিহ্যের উৎপত্তি।




আরেকটি জনপ্রিয় গল্প হল ভ্যালেন্টাইন্স ডে হল লুপারক্যালিয়া নামক একটি প্রাচীন রোমান উৎসবের আধুনিক ব্যাখ্যা। লুপারক্যালিয়া ছিল একটি উর্বরতা উত্সব যা 15 ফেব্রুয়ারি পালিত হয়েছিল। উত্সব চলাকালীন, যুবকরা একটি বাক্স থেকে যুবতী মহিলাদের নাম আঁকবে এবং দম্পতিদের উত্সবের সময়কালের জন্য জুটিবদ্ধ করা হবে।

আজ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস:

ভ্যালেন্টাইন্স ডে ভালোবাসা ও রোমান্সের দিনে পরিণত হয়েছে। লোকেরা তাদের সম্পর্কের অবস্থার উপর নির্ভর করে বিভিন্ন উপায়ে দিনটি উদযাপন করে। দম্পতিরা উপহার এবং কার্ড বিনিময় করে এবং অনেকে ডিনার বা সিনেমার জন্য বাইরে যায়। এটি এমন একটি দিন যখন লোকেরা একটি বিশেষ উপায়ে তাদের উল্লেখযোগ্য অন্যের প্রতি তাদের ভালবাসা প্রদর্শন করে।

যারা অবিবাহিত তাদের জন্য ভ্যালেন্টাইনস ডে একটি কঠিন দিন হতে পারে। এটি তাদের একাকীত্বের অনুস্মারক হতে পারে বা তাদের জীবনে বিশেষ কেউ নেই। যাইহোক, একক ব্যক্তি হিসাবে দিনটি উদযাপন করার উপায় রয়েছে। কিছু লোক তাদের বন্ধুদের সাথে “গ্যালেন্টাইনস ডে” উদযাপন করে, অন্যরা এই দিনটিকে নিজেদের জন্য বিশেষ কিছু করার জন্য ব্যবহার করে, যেমন স্পা ডে নেওয়া বা বেড়াতে যাওয়া।

ভালোবাসা দিবসে যা করবেন:

আপনি যদি একটি সম্পর্কের মধ্যে থাকেন এবং ভ্যালেন্টাইনস ডে উদযাপনের উপায় খুঁজছেন, তবে আপনি বিবেচনা করতে পারেন এমন অনেকগুলি ধারণা রয়েছে। এখানে কয়েকটি আছে:

একটি রোমান্টিক ডিনার পরিকল্পনা করুন: একটি অভিনব রেস্তোরাঁয় সংরক্ষণ করুন বা বাড়িতে একটি বিশেষ খাবার রান্না করুন।




একটি চিন্তাশীল উপহার দিন: ফুল, চকলেট এবং গয়না হল ক্লাসিক উপহার, তবে আপনার স্মৃতির স্ক্র্যাপবুক বা কাস্টমাইজড শিল্পের মতো আরও ব্যক্তিগত কিছু বিবেচনা করুন।

একটি রোমান্টিক ট্রিপ নিন: সপ্তাহান্তে রোমান্টিক গন্তব্যে যাওয়ার পরিকল্পনা করুন বা কাছাকাছি শহরে একদিনের ভ্রমণে যান।

কটি প্রেমের চিঠি লিখুন: একটি হৃদয়গ্রাহী চিঠিতে আপনার অনুভূতি প্রকাশ করুন যা আপনার সঙ্গী রাখতে এবং লালন করতে পারে।

মুভি নাইট করুন: একসাথে দেখার জন্য একটি রোমান্টিক মুভি বেছে নিন এবং সোফায় বসে থাকুন।

মহামারী চলাকালীন ভ্যালেন্টাইন্স ডে উদযাপন:

কোভিড-১৯ মহামারী আমাদের ছুটি উদযাপনের উপায় পরিবর্তন করেছে এবং ভ্যালেন্টাইন্স ডেও এর ব্যতিক্রম নয়। অনেক রেস্তোরাঁ এবং সিনেমা থিয়েটার বন্ধ বা সীমিত ক্ষমতায় পরিচালিত হওয়ার কারণে, দম্পতিদের এই বছর সৃজনশীল হতে হতে পারে। মহামারী চলাকালীন ভ্যালেন্টাইন্স ডে উদযাপনের জন্য এখানে কয়েকটি ধারণা রয়েছে:

একটি ভার্চুয়াল ডেট নাইট করুন: একসাথে রোমান্টিক ডিনার করতে বা একই সময়ে একটি মুভি দেখতে ভিডিও কনফারেন্সিং সফ্টওয়্যার ব্যবহার করুন।

অর্ডার করুন: অনেক রেস্তোরাঁ টেক-আউট বা ডেলিভারির বিকল্প অফার করে, যাতে আপনি এখনও আপনার বাড়ি ছাড়াই রোমান্টিক খাবার উপভোগ করতে পারেন।

হাঁটুন: কিছু সতেজ মুহুর্ত উপভোগ করুন আপনার প্রিয়জনের সাথে। আপনার ভালোবাসা দিবস শুভ হোক!



“বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। কেউ যদি অনুমতি ছাড়া লেখা কপি করে ফেসবুক কিংবা অন্য কোন প্লাটফর্মে প্রকাশ করেন, এবং সেই লেখা নিজের বলে চালিয়ে দেন তাহলে সেই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য থাকবে
ছাইলিপি ম্যাগাজিন।”

সম্পর্কিত বিভাগ

পোস্টটি শেয়ার করুন

Facebook
WhatsApp
Telegram
ওর আর আমার গল্প

ওর আর আমার গল্প

জোবায়ের রাজু আমাদের সংসারে এসে সাবিনা প্রথমে দারুণ সংসারি ছিল। ঘর দোর পরিপাটি করে রাখতে ওর তুলনা সে কেবল নিজেই ছিল। এমন একটি বউ পাওয়া ...
অণুগল্প - নুনভাত

অণুগল্প – নুনভাত

 নৃ মাসুদ রানা ফজরের নামাজের পরে। ভোর সূর্যের কাছাকাছি। সবেমাত্র বিছানায় পিঠ ঠেকিয়েছি। ঠিক তখনই কাকপক্ষীর ডাক। মা গিয়ে হুঁশ হুঁশ তাড়িয়ে দিল। আর বলতে ...
সূঁচের ফোড়েঁ জীবনের পথরেখা

সূঁচের ফোড়েঁ জীবনের পথরেখা

নাজিফা আক্তার শারিকা সকাল থেকেই তাড়াহুড়ো রাবেয়ার। সেই ভোরবেলা উঠে কয়টা চাল সিদ্ধ করেছে। ” সাদা পানির মধ্যে অপরিপক্ক কিছু চাল! “একে চাল সিদ্ধ ছাড়া ...
জোবায়ের রাজুর দুটি গল্প

জোবায়ের রাজুর দুটি গল্প

অকৃজ্ঞ  রিনা খালাকে মাঝে মাঝে আমার আধা পাগল মনে হয়। মাঝে মাঝে কি সব অদ্ভুত আচরন করেন। এ বয়সে তার নাকি শখ হল নাচ শেখার। ...
সাহিত্য বিশারদঃ বাঙালির একতা

সাহিত্য বিশারদঃ বাঙালির একতা

হামীম রায়হান  বাংলা সাহিত্যের যে রেঁনাসার সৃষ্টি হয়েছিল তা সত্যিই কী সমগ্র বাংলা সাহিত্যের রেঁনাসা ছিল? এমন প্রশ্ন যদি উঠে তবে সে প্রশ্নের জবাব কিন্তু খুব ...
ছড়া - অন্নপূর্ণা 

ছড়া – অন্নপূর্ণা 

স্বাগতা ভট্টাচার্য  দূর্গা পূজা আসছে বলে আমার খুকু হাসছে। পায়নি খেতে ওদের খুকু বানের জলে ভাসছে। আমার খুকু পরবে পূজায় টুকটুকে লাল জামা। একটা জামা ...