বেখেয়ালে

বেখেয়ালে

আশিক মাহমুদ রিয়াদ

কোন এক তপ্তদুপুরে, ক্লান্ত চোখে তৃষ্ণার্ত গলায়-
রাস্তার মোড়ের সস্তা হোটেল থেকে বেড়িয়ে
নীল পারের ঘ্রাণ  ছুঁয়ে গিয়েছিলো তারুণ্যকে,
একটা সাদা বিএমডব্লিউ গাড়িতে।
লাল রঙা শাড়ির পার উড়িয়ে, সে চলে গিয়েছিলে-
অবলা, আনমনা, উষ্কখুষ্ক এক জীর্ণ ছেলের সামনে থেকে।

লাল পারের মেয়ে!
তুমি কি জানতে তোমার বাহুডোরে যে গোলাপ ফুঁটেছে
সেখানে কাটারদল ফিসফিসিয়ে তোমার হৃদয় চোষে।
তোমার পাশে যারা আছে, তারা তোমার ভালো বন্ধু নয় বটে।
জাত সাপের মত বিশ্বাসঘাতক, তারা তোমার দেহের ঘ্রাণে হারায়।
আনমনা, আনকোরা এক জীর্ণশীতল প্রেমিক হয়ে
চায়ের কাঁপে কল্পনার চুমু খেয়ে
তোমাকে ছোঁবার নেশায় যে পুরুষ বুঁদ হয়েছে।
তাকে তুমি অন্তত চরিত্রহীণ বলতে পারো না।

সে অপরাধবোধে ভোগে, আপ্রাণ চেষ্টায় নিজেকে গুটিয়ে
তোমাকেই তো শেষমেষ ভালোবাসে।
তাকে তুমি অন্তত কাপুরুষ বলতে পারো না।
অথবা পারো, সেই কাব্যিক পৌরষের এক ভ্রান্ত ভুল।
অর্থতে মেলে না সুখ বটে, নারীও দাসী হয় অর্থের প্রয়াসে।
পৌরষ্য ছিনিয়ে নেয় অর্থের কড়াল গ্রাসে!

তোমার সামনে হয়ত সে একদিন মার্সেডিজ কিংবা শাদা রঙের
বিএমডব্লিউ নিয়ে হাজির নাও হতে পারে।
অথবা যদি চাও সে ফিরতে পারে বাস্তবতার কড়াল গ্রাসে।
জ্বর কাঁতর গ্লাসে চুমুক দিয়ে জল তেষ্টা ছটফট করে
একবার যদি দেখা দাও তুমি, অথবা বলো ঐশ্বুরিক পাণে।
জেনে রেখো সে নরকে তোমার সাথী হবে
অনন্তকালের অধৈর্যের আগুনে।

তুমি তাকে পাপী বলতে পারো কিংবা অভাগা।
চায়ের দোকানে বাকির নামে যার হয় হালখাতা
তাকে কি তোমায় পাওয়ার শোভা পায়?
কি অদ্ভুত রং মিশেলে হৃদয়ের গহিণে
যাপিত নিদ্রায় কল্পনায় তোমার শরীর ছোঁয়
অথবা ক্লান্ত পথের পথিক হয়ে শেষ সূর্য হতে চায়।
হায় বিধাতা বলে, এ কেমন পৌরষ বটে?
যে জীবন হারায় নারীর ছলনায়।
হায় বিধাতা বলে, এ কেমন মেতেছো খেলায়।
জীবন নামের ষোলগুটিতে,
তুমি পাশা সাজাও হ্যালায় ঠ্যালায়।
তুমি হায় মানুষ বটে, শূন্য হাতে ছুঁতে চাও অট্টালিকা।
দিব্য ফাগুনে আগুন জ্বলে, আঁধার রাতে নিভু নিভু প্রদীপে
আগে ইহজনম সামলাও, পরজনমের আগে না হারাও বেখেয়ালে।

“বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। কেউ যদি অনুমতি ছাড়া লেখা কপি করে ফেসবুক কিংবা অন্য কোন প্লাটফর্মে প্রকাশ করেন, এবং সেই লেখা নিজের বলে চালিয়ে দেন তাহলে সেই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য থাকবে
ছাইলিপি ম্যাগাজিন।”

সম্পর্কিত বিভাগ

পোস্টটি শেয়ার করুন

Facebook
WhatsApp
Telegram
মনমুগ্ধকর ঈদের কবিতা (আবৃত্তি)

মনমুগ্ধকর ঈদের কবিতা (আবৃত্তি)

ভোরের আজান ও আশা পূরণের কাব‍্য

ভোরের আজান ও আশা পূরণের কাব‍্য

মহীতোষ গায়েন ভোরের আজান সেরে আব্বাজান বলেছিল– দেখে নিস খুকি,এবারের খাল ধারের ঐ চিলতে জমি টুক্ আমরা সরকারের কাছ থেকে পাট্টা পাব… আমাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই ...
একজন কবি এবং তার কবিতা | আতিদ তূর্য

একজন কবি এবং তার কবিতা | আতিদ তূর্য

আতিদ তূর্য এক. একটি সুস্বাদু জীবনের রেসিপি তোর খোপায় গুঁজে দেবো, পাহাড়ি কোন এক রঙিন ফুল। তোকে নিয়ে ১৮০০ ফুট উঁচুতে, হৃদয়ের টবে গুছিয়ে সাজাবো। মেঘ ...
ভালোবাসা একটি অসুখের নাম ৷

ভালোবাসা একটি অসুখের নাম ৷

মুহাম্মদ ফারহান ইসলাম নীল ৷ আপনার কোকিলা কন্ঠের মায়াতে বন্দী হয়েছে আমার অন্তর ৷ সাঁতার না জানার কারণে ডুবে গেছি আপনার প্রেমে ৷ আপনাকে আপন ...
শেষ যাত্রা

শেষ যাত্রা

আবিদ হোসেন জয় [১] সি.এন.জি ড্রাইভার আব্বাস মিয়া পরপর দু’বার চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে হাত ঘড়ির দিকে তাকালেন। রাত সাড়ে এগারোটা বাজে। তিনি বড় রাস্তার ...
বাসন্তিকা তোমায়

বাসন্তিকা তোমায়

তপন মাইতি মাথার ওপর দিয়ে চলে গেল কীভাবে দিনগুলো… সূর্য ওঠা ডোবার মাঝখানে কী ঘটেছে কে বলবে? যেভাবে মানুষের প্রচণ্ড দুঃখ হয় হৃদয় ভাঙলে নিজের ...