হৈমন্তিকা

অশোক কুমার পাইক

হেমন্তেরই পরশ আজি লাগলো বুঝি গায়ে
প্রকৃতিটা জাগলো হেসে রঙিন রাঙা পায়ে,
শিউলি ফুলের গন্ধে ভরে ধরার ধুলার পরে
ঘাসের মাথায় শিশির বিন্দু টপটপিয়ে ঝরে l

শরতেরই কাশফুলেতে শিশির নুইয়ে দিয়ে
হেমন্তেরই আগমন যে দারুণ শোভা নিয়ে,
দুধেল জোৎস্না সকাল ফুটে নিশি অবসানে
নতুন পাতা গজায় গাছে ঋতু পাখির গানে l

সৌন্দর্য আর মনোরমে গাছগাছালি জাগে
ছাতিম ফুলের গন্ধ যেন নাকে সবার লাগে,
কামিনী কাঞ্চন গন্ধরাজে ফুটে কানন জুড়ে
হৈমন্তিকার দারুণ শোভা মনটি যাবে ঘুরে l

আমলকী ও চালতা ঝুলে থাকে বৃক্ষ শাখে,
কামরাঙা ও ডালিম ফলে গাছে ভরে থাকে ;
এমন সোনার বাংলা তুমি বল কোথায় পাবে,
ষড়ঋতুর আসল ঋতু ফেলে কোথায় যাবে ?

মাঠের পাকা ধান যে কাটা এই হেমন্তে হবে
চাষীর ঘরে ফসল বানে সবাই খুশি রবে,
নতুন চালের পিঠাপুলি করবে বাংলা জুড়ে
হৈমন্তিকার রূপের ডালি যায় যে মাথা ঘুরে l

এই লেখাটি শেয়ার করুন