হলুদ ফেরীর গল্প

হলুদ ফেরীর গল্প

আশিক মাহমুদ রিয়াদ

নদী মাতৃক বাংলাদেশের সাথে ফেরী সার্ভিস এর এক অনন্ত মিল। হলুদ ফেরি। যেটি ফেরি ইউটিলিটি নামে বেশ পরিচিত। এই ফেরি সার্ভিস কালের পর কাল ধরে বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল ও হাওড় অঞ্চলে নদীপাড়াপাড়ের কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আজ আমরা আপনাদের জানাবো একটি ফেরীর গল্প। কি অবাক হলেন? ফেরীরও আবার গল্প হয় নাকি? তাহলে চলুন ফেরী পারাপারের গল্প শোনা যাক আমাদের এই বিশেষ আয়োজনে।

ফেরী পারাপার হয় কিভাবে? দেখে নিন একঝলকঃ

বাংলাদেশে ফেরী সার্ভিসের সূচনা ঠিক কতসালে হয়েছে তার নির্দিষ্ট কোন তথ্য না থাকলেও বিভিন্ন বই পুস্তক থেকে জানা যায়, ব্রিটিশ আমলে এই ফেরীর মাধ্যমেই পাড় হতো গোটা একটা ট্রেন। ট্রেন ভেঙে ভেঙে বগি আলাদা করে পাড় করা হতো ট্রেন। তবে কালের পরিক্রমায় এখন ট্রেন পাড়াপাড়ের জন্য প্রয়োজন হয় না ফেরী। সাধারণত নির্দিষ্টভাবে বলা না গেলেও এক নটিকেল মাইলের নৌপথে ফেরী সার্ভিসের জন্য ব্যবহার করা হয় সড়ক ও জনপথের ফেরী। যা ফেরি ইউটিলিটি নামে পরিচিত। সড়ক ও জনপথের এই ফেরী সার্ভিস দক্ষিনাঞ্চলের নৌপথ ও হাওড় অঞ্চলে দেখা যায়। এ ছাড়াও এক নটিকেল মাইলের অধিক দূরত্বের নৌপথের জন্য ব্যবহার করা হয় বিআইডব্লিউটিএর ফেরি সার্ভিস। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথটি বিআই ডব্লিউ টি এ ফেরী সার্ভিস পরিচালনা করে। অপরদিকে দক্ষিণাঞ্চলেও ভোলার ভেদুরিয়া ও লাহারহাট নৌরুটে পরিচালনা করা হয় বিআইডব্লিউ টি এর ফেরী সার্ভিস। এ ছাড়া ব্যবহার হয় সড়ক ও জনপথের ফেরী সার্ভিস।

 

 

নেভিগেটিং বাংলাদেশের জলপথ: ফেরি সার্ভিসের মাধ্যমে একটি যাত্রা

বাংলাদেশ, নদী ও নৌযোগাযোগের জন্য পরিচিত একটি দেশ, ফেরি সার্ভিস সম্পর্কে একটি সমৃদ্ধ ঐতিহ্য রয়েছে যা প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলিকে সংযুক্ত করেছে,। এই ফেরী সার্ভিস বাণিজ্য বৃদ্ধিতে এবং লক্ষ লক্ষ মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় পরিবহন সরবরাহে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। জাতিকে অতিক্রম করে একটি ঘন নদীময় ল্যান্ডস্কেপ সহ, ফেরিগুলি দেশের পরিবহন ব্যবস্থার একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে।

বাংলাদেশে ফেরির ব্যবহার শত শত বছর আগেকার, জল যাতায়াতের প্রধান মাধ্যম। ঐতিহাসিকভাবে, পদ্মা, মেঘনা এবং যমুনার মতো নদীগুলি প্রাকৃতিক মহাসড়ক হিসাবে কাজ করেছিল, যা বাণিজ্য ও যাতায়াতের সুবিধা ছিল। সময়ের সাথে সাথে, ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যা এবং আধুনিক জীবনের চাহিদা মিটমাট করার জন্য ফেরি পরিষেবাগুলি বিকশিত হয়েছে।

ফেরী কিভাবে পরিচালনা করা হয়? দেখে নিন একঝলকঃ

ফেরির গুরুত্বঃ

ফেরি পরিষেবাগুলি এমন একটি দেশে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যেখানে রাস্তার অবকাঠামো প্রায়ই অপর্যাপ্ত, বিশেষ করে গ্রামীণ এবং প্রত্যন্ত অঞ্চলে। বাংলাদেশের বিস্তৃত নদী নেটওয়ার্ক অঞ্চলগুলির মধ্যে ব্যবধান পূরণের জন্য ফেরি পরিষেবাগুলির জন্য একটি প্রাকৃতিক সুযোগ প্রদান করে, যা জনসংখ্যার একটি বড় অংশের জন্য পরিবহনকে সহজলভ্য এবং সাশ্রয়ী করে তোলে।

মোঃ আলমগীর হোসেন নামের একজন ফেরী চালকের সাথে আমাদের দীর্ঘক্ষণ কথা হলো ফেরী সংক্রান্ত নানা বিষয় সম্পর্কে। অডিও জটিলতার কারণে তার মূল কন্ঠ আমরা বাদ দিয়েছি। তিনি আমাদের জানিয়েছেন তিনি ১৯৮৭ সাল থেকে ফেরীতে চাকুরী করছেন। নাব্যতা সংকট ও শীতকালে কুয়াশা থাকার কারণে ফেরী চালকদের মাঝেমধ্যে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হলেও তারা ঘাবড়ে না গিয়ে দক্ষতার সাথে সেসব চ্যালেঞ্জ সামলে নান। এ ছাড়াও আলমগীর হোসেন জানিয়েছেন দীর্ঘ চাকুরীর জীবনে তিনি আল্লাহর রহমতে এখন পর্যন্ত কোন দূর্ঘটনার সম্মুক্ষীন হননি। ঈদে বাড়িতে যেতে পারেন কি না, সে প্রসঙ্গে আলমগীর হোসেন বলেছেন,’ছুটি নেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে ঈদে বাড়ি ফিরতি মানুষের চাপ একটু বেশি থাকে বিধায় অনেক ঈদ তিনি ফেরীতেই কাটিয়েছেন’

বাংলাদেশে ফেরি পরিষেবাগুলির একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা হল প্রত্যন্ত এবং বিচ্ছিন্ন অঞ্চলগুলিকে সংযুক্ত করা যা অন্যথায় পৌঁছানো চ্যালেঞ্জের। অনেক ক্ষেত্রে, নদীতীরবর্তী গ্রামগুলি প্রতিদিনের যাতায়াত, পণ্য পরিবহন এবং স্বাস্থ্যসেবা এবং শিক্ষার মতো প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলিতে অ্যাক্সেসের জন্য ফেরির উপর খুব বেশি নির্ভর করে।

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি যে একসময় ফেরী পাড় হতো ট্রেন। ব্রিটিশ আমলে এই ফেরীর মাধ্যমে বগিসহ পাড় হতো গোটা একটি ট্রেন-

বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের সুবিধার্থে ফেরি সার্ভিস অপরিহার্য। তারা পণ্য, কৃষি পণ্য এবং কাঁচামাল পরিবহনের জন্য একটি লাইফলাইন হিসাবে কাজ করে। দক্ষতার সাথে বিপুল পরিমাণ পণ্য পরিবহনের ক্ষমতা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরাসরি প্রভাব ফেলে।

তাদের উপযোগী উদ্দেশ্যের বাইরে, বাংলাদেশে ফেরিগুলি দেশের পর্যটন শিল্পে অবদান রাখে। ভ্রমণকারীরা প্রায়ই নদীগুলির নৈসর্গিক সৌন্দর্য অনুভব করতে এবং তীর বরাবর প্রাণবন্ত গ্রামীণ জীবন দেখার জন্য ফেরি ভ্রমণের জন্য বেছে নেয়। জনপ্রিয় ফেরি রুট, যেমন সুন্দরবনে, বিশ্বের বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বন অন্বেষণ করার একটি অনন্য সুযোগ প্রদান করে।

যদিও ফেরি পরিষেবাগুলি অপরিহার্য, তারা তাদের নিজস্ব চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসে৷ নিরাপত্তা উদ্বেগ, অত্যধিক ভিড়, এবং অপ্রত্যাশিত আবহাওয়ার পরিস্থিতিগুলি এমন সমস্যা যা ক্রমাগত মনোযোগের প্রয়োজন। সরকারী ও বেসরকারী অপারেটররা এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন, জাহাজের আপগ্রেডিং এবং অবকাঠামো উন্নত করার জন্য কাজ করছে।

বাংলাদেশে ফেরি পরিষেবাগুলি দেশের পরিবহন নেটওয়ার্কের একটি অপরিহার্য উপাদান, যা নদীর দুপাড়কে সংযুক্ত করে, বাণিজ্যকে উৎসাহিত করে এবং দেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের একটি অনন্য দৃষ্টিভঙ্গি প্রদান করে। বাংলাদেশের উন্নয়ন অব্যাহত থাকায় ফেরি সার্ভিসের আধুনিকীকরণ এবং উন্নতি তার নাগরিকদের জন্য নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য এবং দক্ষ পরিবহন নিশ্চিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। ফেরি পরিষেবাগুলিতে ঐতিহ্য এবং অগ্রগতির অনন্য সংমিশ্রণ নদী দ্বারা গঠিত একটি জাতির স্থিতিস্থাপকতা এবং অভিযোজনযোগ্যতা প্রতিফলিত করে।

দক্ষিণাঞ্চলে ব্রিজ নির্মানের কারণে দিন দিন সংকীর্ণ হচ্ছে ফেরির সার্ভিস। এটি অবশ্য ভালো দিক। ফেরী সার্ভিস কমে যাওয়ার দরুণ সড়ক পথে বিভিন্ন নদীবেষ্টিত জেলার সাথে সংযুক্ত হচ্ছে রাজধানী ঢাকা।যার ফলে দেশের অর্থনীতিও দিন দিন প্রসরিত হচ্ছে।

প্রিয় দর্শক ভিডিওটি দেখার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। ভিডিওটি ভালো লাগলে এবং পরবর্তীতে এই চ্যানেল থেকে নতুন ভিডিওর আপডেট পেতে চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করতে ভুলবেন না।

 

“বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। কেউ যদি অনুমতি ছাড়া লেখা কপি করে ফেসবুক কিংবা অন্য কোন প্লাটফর্মে প্রকাশ করেন, এবং সেই লেখা নিজের বলে চালিয়ে দেন তাহলে সেই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য থাকবে
ছাইলিপি ম্যাগাজিন।”

সম্পর্কিত বিভাগ

পোস্টটি শেয়ার করুন

Facebook
WhatsApp
Telegram
সুন্দরবনের ভ্রমণ কাহিনী

সুন্দরবনের ভ্রমণ কাহিনী

প্রদীপ দে  সুন্দরবন ঢুকছি টুরিস্ট ব্যুরোর বড় লঞ্চে। দেখতে একটা ছোট জাহাজ। ম্যাংগ্রোভের জঙ্গলের পাশ দিয়ে, উজানে তরতরিয়ে এগিয়ে চলেছি। একবার ডেকের মাথায় চড়ি তো ...
সাকিব হোসেন নাঈম এর কবিতা

সাকিব হোসেন নাঈম এর কবিতা

সাকিব হোসেন নাঈম তাফালবাড়ি ময়দানে একবার মাহফিল হইতে চলিল। খাদেম সাহেব বারেক মিয়াকে চান্দা তুলিতে বলিল। বারেক, সে যে অতিশয় বুড়ো হৃদরোগ আছে তার। এপর্যন্ত ...
চ

চ ‘চুপি চুপ বলো কেউ জেনে যাবে’ এই গানটি নিঃসন্দেহে জীবনে একবার হলেও শুনেছেন? না শুনে থাকলেও ক্ষতি নেই বৈকি। তবে আসুন এবার জানাই ‘চ’ ...
প্রাক্তন

প্রাক্তন

প্রেমের কবিতা – তাসফীর ইসলাম (ইমরান)   বসন্তের এক পড়ন্ত বিকেলে ঘোর লাগা এক বাস্তব প্রতিক্ষণে আজ থেকে বেশ কয়েক বছর পর যখন হবে- আমাদের ...
দাঁতে ব্যাথার কারণ / প্রতিকার

দাঁতে ব্যাথার কারণ / প্রতিকার

ছাইলিপি আর্টিকেল ডেস্ক দাঁতে ব্যাথা দাঁত সংক্রান্ত একটি তীব্র ব্যাথা যা সঠিক চিকিৎসা না করলে দিন দিন বৃদ্ধি পেয়ে একসময়ে ভীষণ প্রদাহ বা ব্যাথার সৃষ্টি ...
ভোর বিহানে

ভোর বিহানে

ছাদির হুসাইন ছাদি ভোর বিহানে পাখির গানে নিত্য ভাঙে ঘুম, জেগে ওঠে শিশু-কিশোর প্রাণে খুশির ধুম। মিষ্টি রোদের আলো দেখে জুড়ায় দু’টি আঁখি, সবুজ রাঙা ...