কবিতা – “কালোবতী” | মেহেদী হাসান | সাপ্তাহিক স্রোত-১১

কবিতা - "কালোবতী"  | মেহেদী হাসান | সাপ্তাহিক স্রোত-১১

|’মেহেদী হাসান

 

বেশ ক’দিন,

মেয়েটি অবসন্নতায় নিঃশ্বাসরূদ্ধ-

তাহার কোনো আওয়াজ নেই,

সে কেঁদে কেঁদে চোখে পানি তোলে,

চোখে তাহার নীলছে পানির সমুদ্র।

বাহিরের আকাশে শঙ্খচিল,

ডাকে তাহারে অবিশ্রান্ত-

কে খুঁজিয়া দেখিবে তাহার বেদনার শেষ প্রান্ত?

 

একাকীত্ব আর নিঃসঙ্গতায় সে-

নিমীলিত চোখে কৃষ্ণপক্ষের চাঁদ দ্যাখে,

তাই তো-দ্বিতীয়ার চাঁদ গোস্বা করিলো,

উঠিলো না আর গগনে।

জীবন যে তাহার থামিয়াছে নির্বাক শ্মশানে!

নিশীরাতে তাহার ঘুম ভাঙিয়া ভীতি ধরিলো মনে,

বাজা মেয়ে যে,মা হইয়াছে তাহার স্বপনে।

 

সে আলগোছে শ্যেন দৃষ্টি ফেলিয়া খোঁজে-

মৃত মানুষের খোলা চোখ!

বুত পূজারী ছাড়িয়া দিলো দেবতার পূজা-

চক্ষুদ্বয় নাবায়ে চাহিলো তাহার সুখ।

তীব্র আশা ভাঙিতে লাগিলো বেগানার-

তোয়াক্কল না করিবার ফলে।

কে না জানে প্রেমপ্রীতি তাহার চরণের তলে?

 

নিরাক পথিক হঠাৎ-ই থামিলো,

কহিলো-

কে গো তুমি?কাঁদিতেছো কেনো?

কালো বলিয়া কাঁদিয়া করিলো,নিজ আত্মার খুন;

অথচ কালো যে ধরিত্রীর মায়া,সর্বাঙ্গের গুন।

 

উৎসর্গঃ”সেইসব কালো মেয়েদের জন্য যারা ‘মৃত মানুষের খোলা চোখ’ খুঁইজা বেড়ায়, যারা কালো বইলা কাঁইন্দা কাঁইন্দা চোখে পানি তোলে,নিজেরে খুন করে।

অথচ তাদেরই মায়ায় পড়ে বুত পূজারী দেবতার পূজা ছাইড়া দিলো।”

“বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। কেউ যদি অনুমতি ছাড়া লেখা কপি করে ফেসবুক কিংবা অন্য কোন প্লাটফর্মে প্রকাশ করেন, এবং সেই লেখা নিজের বলে চালিয়ে দেন তাহলে সেই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য থাকবে
ছাইলিপি ম্যাগাজিন।”

সম্পর্কিত বিভাগ

পোস্টটি শেয়ার করুন

Facebook
WhatsApp
Telegram
ধারাবাহিক গল্প-অচিনপুরের দেশে-পর্ব-১

ধারাবাহিক গল্প-অচিনপুরের দেশে-পর্ব-১

[মুখবন্ধ: করোনা কবলিত বদ্ধ জীবনে কিছুটা একঘেয়েমি কাটানোর জন্যেই এই গল্প গল্প খেলাটি আমার প্রিয় দিদি-সহকর্মী পাঞ্চালী মুখোপাধ্যায়ের সাথে শুরু করেছিলাম৷ দিদির আন্তরিক আগ্রহ ও ...
ফ

ফ বাংলা ভাষার বাইশতম ব্যাঞ্জনবর্ণ হলো- ফ। ফ অক্ষরটি বাংলা বর্ণমালার তেত্রিশতম অক্ষর। ফ এর সাথে যখন আ যোগ হয়(+) তখন – ‘ফা’ হয় আবার ...
বর্ষা ফুলের গন্ধে

বর্ষা ফুলের গন্ধে

সুজন সাজু  জানলা দিয়ে দেখছি দূরে বিষ্টি পড়ে মিষ্টি সুরে প্রাণ কেড়ে নেয় আহা, ইমলি পাতার ঝিমলি নাচন দৃষ্টি নন্দন নাহা। বৃষ্টির ফোটা ঝম ঝমিয়ে ...
কেউ পারিনি ওপারে যেতে

কেউ পারিনি ওপারে যেতে

ইব্রাহিম বিশ্বাস সারা রাত জেগে জেগে আমি কাদের আনাগুনা দেখি ওরা কারা ? সবার কাঁধে কাঁধে লাশ হাঁটতে হাঁটতে ক্লান্ত নদীর কিনারায় এসে দাঁড়িয়েছে মৌ ...
গৌর (মালদা) - বাংলার চিত্তাকর্ষক ইতিহাস

গৌর (মালদা) – বাংলার চিত্তাকর্ষক ইতিহাস

শিবাশিস মুখোপাধ্যায় বাংলার চিত্তাকর্ষক ইতিহাস সম্পর্কে জানার সময়, গৌরের মতো আর কিছু গন্তব্য হতে পারে না। এই স্থানটি এর মধ্যে সবচেয়ে প্রাচীন ঐতিহাসিক স্থাপত্যের কিছু ...
মেডিক্যাল রিপ্রেজেন্টেটিভ -দীর্ঘ পথের স্মৃতি কথা  [পর্ব- ২ ]

মেডিক্যাল রিপ্রেজেন্টেটিভ -দীর্ঘ পথের স্মৃতি কথা [পর্ব- ২ ]

মিরাজুল হক  দু সপ্তাহের  একটা ক্লাশ রুম ট্রেনিং দিয়ে আমার পেশাদারী জীবনের চলা শুরু । মিস্টার রজত মৈত্র তখন  কন্-টেস্ট ( KonTest )-এর ট্রেনিং ম্যানেজার ...