কয়েকটি অণুকবিতা

কয়েকটি অণুকবিতা

মৃধা আলাউদ্দিন

ব্যর্থ এ জীবন
সন্ধ্যা না ভাই, সমস্ত রাত গেল আমার শুঁড়িখানায়
ব্যস্ত ছিলাম নগ্ন নারী, নর্তকীদের চুড়ি নাড়ায়।

 নেশা

নর্তকীদের নূপুর কিংবা ঢোলের ঢঙে যাচ্ছি নেশায় গড়িয়ে
রাত ফুরায়ে ভোর হয়েছে, কাঁপছি আমি⎯ পড়ছে আলো ছড়িয়ে।

শুঁড়িখানা

এখান থেকে আর যাব না পাখি কিংবা নরম তুলো নদীর কাছে
শীৎকার এবং ষড়ৈশ্বর্য⎯ শুঁড়িখানায় জোছনা-তারা সবই আছে।
বিষ প্রয়োজন
মৃধা আলাউদ্দিন
শুঁিড়খানার নরম দেহ, কাবাব ভুনা, আদিরসের নিষ্প্রয়োজন
কান্নাভেজা জীবনে আজ আমার দেখি সবার আগে বিষ প্রয়োজন।

শুঁড়িখানায়

মধ্য রাতে শুঁড়িখানায় এমন করে দিলে যখন হাত ছেড়ে
নীল ব্যথাতে বুকের ভেতর শব্দ হলো যেমন করে কাঠ চেড়ে…

যৌবন

জীবন কেনো যায় না ধরা, যায় না ধরা⎯ নারীর দেহ নদীরে
আমার কথা বলব সবি শুঁড়িখানায় খোদারে পাই যদিরে।

তোর জন্য

শুঁড়িখানার চারদেয়ালে লিখে দিলাম তোর কথা
সন্ধ্যা হলে একলা থাকি, সয়না বুকে নীল ব্যথা।

আমিই কবি

শুঁড়িখানায় ঢুকেই দেখি রঙমহলে নগ্নদেহ, তোর ছবি
সত্যি বলি আর কিছু না, তখন থেকে এই শহরে আমিই কবি।

একটু দেখি অল্পক্ষণ

শুঁড়িখানায় একলা থাকি চোখের জলে সারাক্ষণ
কোথায় গেলি আয় না কাছে, একটু দেখি অল্পক্ষণ।

দ্বার খুলে দে শুঁড়িখানার

মিনার থেকে ডাক দিয়ে কয় আয়রে সাকি দ্বার খুলে দে শুঁড়িখানার
জীবনযুদ্ধে ছুটবে এখন মানুষগুলো⎯ চাল কল এবং গুঁড়িখানার।

নিরুপায়

হঠাৎ দেখি হুর-পরি না কারা যেনো নূপুর কিংবা নুড়ি নাড়ায়
গভীর রাতে একলা আমি বেহেড মাতাল কাঁপতে ছিলাম শুঁড়িখানায়।

কবি  
মানুষের ষড়ৈশ্বর্য, শুঁড়িখানা⎯ আলোর বয়ান
কবিদের রাগ নেই, রোগ নেই⎯ কবিরা জোয়ান।

 

 

“বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। কেউ যদি অনুমতি ছাড়া লেখা কপি করে ফেসবুক কিংবা অন্য কোন প্লাটফর্মে প্রকাশ করেন, এবং সেই লেখা নিজের বলে চালিয়ে দেন তাহলে সেই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য থাকবে
ছাইলিপি ম্যাগাজিন।”

সম্পর্কিত বিভাগ

পোস্টটি শেয়ার করুন

Facebook
WhatsApp
Telegram
জানালার ওপাশে- মুহাম্মদ শামীম

জানালার ওপাশে- মুহাম্মদ শামীম

  মুহাম্মদ শামীম    সবকিছু কেন জানালার ওপাশে থাকে কিছুটা অন্তত এদিক ওদিক থাক; প্রেম ভালোবাসা না হয় বাদ দিলাম ফুল, চাঁদ, বাহারি আসমান, মেঘের ...
লোকটির চলে যাওয়া- প্রিয় রহমান আতাউর   

লোকটির চলে যাওয়া- প্রিয় রহমান আতাউর   

প্রিয় রহমান আতাউর    চলে গেলেন কার্তিকের শেষ রাতে- উচ্ছিষ্টভোগী কাকগুলো ডেকে চলেছে তখনো কা কা রবে! ঝিঁঝিঁ পোকারাও ছেড়ে গেছে ফনি মনসার ঝোপ! দীপাবলি রাতে পাতিহাঁসের ...
কবিতা- কাঠখোট্টা দিন । গোলাম কবির 

কবিতা- কাঠখোট্টা দিন । গোলাম কবির 

।গোলাম কবির    কত দিন তোমার চিঠি আসে না আর রঙিন খামে যত্নে লেখা গোটা গোটা সোনার হরফে। লিখো না আর প্রিয়তমেসু কেমন আছো? কেমন ...
নগর পিশাচ

নগর পিশাচ

ভুতের গল্প – নাঈমুর রহমান নাহিদ   শহরের মানুষ ঘুমের রাজ্যে হারিয়েছে বেশ খানিকক্ষণ। স্টেশন থেকে বেরিয়ে কোন রিক্সা বা সিএনজি চোখে পড়লনা। এক দুটো ...
অণুগল্প- হাত / অমিতা মজুমদার 

অণুগল্প- হাত / অমিতা মজুমদার 

  । অমিতা মজুমদার    বিলটু আর বলাই  ছুটির  দিনের  ভরদুপুরে ব্যতিব্যস্ত হয়ে হেঁটে যাচ্ছে। পথে করিম মোল্লার সাথে দেখা,জানতে চাইলেন কোথায় যাচ্ছে। বিলটুর সরল উত্তর ...
স্বাক্ষর

স্বাক্ষর

জোবায়ের রাজু সাত সকালে মায়ের বাড়ি কাঁপানো চিৎকার শুনে আমাদের চোখ থেকে ঘুম নিমিষেই পালিয়ে গেল। কোন অঘটন ঘটেছে কিনা, সেটা পর্যবেক্ষণ করতে আমি আর ...